মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং। Online Income Your Guide to Online Earning Strategies

আসসালামু আলাইকুম চলে আসলাম আরও একটা নতুন আরনিং ওয়েবসাইটের ব্লগ নিয়ে। এবং আজকের ব্লগটা একটু অসাধারণ হতে যাচ্ছে। কারণ আজকে আমরা সম্পূর্ণ ফ্রি একটা আরনিং ওয়েবসাইট নিয়ে আলোচনা করতে যাচ্ছি। অনলাইন থেকে ইনকাম করার সবচেয়ে জনপ্রিয় সাইটগুলোর মধ্যে ফ্রি সাইটগুলো অন্যতম। কারণ এই সাইটগুলোতে কোন প্রকার টাকা ইনভেস্টমেন্ট করতে হয় না।আর যদি হয়ও সেটা খুবই কম টাকা।মাত্র একটা অ্যাকাউন্ট তৈরি করে ওয়েবসাইটের সম্পূর্ণ এক্সেস পাওয়া যায়।এত কথা না বলে চলুন ধাপে ধাপে জেনে নেই আজকে ওয়েবসাইটের বিস্তারিত। আজকে আমরা আলোচনা করব freelancingview ওয়েবসাইট নিয়ে।


freelancingview ওয়েবসাইট কি?



freelancingview ওয়েবসাইট হলো একটা মাইক্রোজব ওয়েবসাইট। অনলাইন থেকে দ্রুত সময় এবং খুব সহজে ইনকাম করার মাধ্যম হচ্ছে মাইক্রো জব ওয়েবসাইট। যেখানে কোন প্রকার অভিজ্ঞতা ছাড়া কাজ করা যায়। তার মানে এখানে সকল শ্রেণীর লোক কাজ করতে পারবে। সেটা হতে পারে একজন স্টুডেন্ট অথবা হতে পারে একজন গৃহিণী অথবা হতে পারে একজন কর্মকর্তা। একটা স্মার্ট ফোন থাকলেই যে কেউ এখানে কাজ করতে পারবে।

Microjob কাকে বলে?
আমরা সবাই জানি Micro মানে হচ্ছে ছোট। আর Job মানে হচ্ছে কাজ। এক কথায় বলতে গেলে মাইক্রোজব হচ্ছে ছোট ছোট কাজের সমাহার। উদাহরণস্বরূপ বলতে গেলে, ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করা, ইউটিউবের ভিডিও দেখা, বিভিন্ন পোস্ট বা ভিডিও লাইক, কমেন্ট করা, বিভিন্ন ওয়েবসাইটে অ্যাকাউন্ট ক্রিয়েট করা ইত্যাদি এ সকল কাজগুলো মাইক্রোজব কাজের অন্তর্ভুক্ত। আর এই সকল কাজ করার জন্য পূর্বের কোন অভিজ্ঞতা থাকতে হয় না। কারণ যাদের হাতে মোবাইল ফোন আছে তারা কিন্তু প্রতিনিয়ত এগুলো করে যাচ্ছি।

কিভাবে কাজ শুরু করতে হবে?
এই সাইটে কাজ করতে হলে প্রথমত আপনাকে একটি একাউন্ট তৈরি করে নিতে হবে। আর একাউন্ট তৈরি করতে হলে অবশ্যই লিংকে প্রবেশ করতে হবে।👉 Click Here For Website 👈 ( এলার্ট: প্রথম ক্লিকে অন্য সাইটে চলে যেতে পারে, এমন হলে ব্যাক আসুন এবং আবার ক্লিক করুন। এইভাবে ২-৩ বার ট্রাই করুন। তাহলে আসল সাইটে পৌঁছে যাবেন ) এখানে ক্লিক করে ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। প্রবেশ করার পর অবশ্যই ওপরে থ্রি আইকনে ক্লিক করে সাইন আপ বাটনে ক্লিক করার পরে আপনার সমস্ত ইনফরমেশন দিয়ে একটা অ্যাকাউন্ট তৈরি করে নিতে হবে। একাউন্ট তৈরি করার সময় রেফার কোড ব্যাবহার করতে হবে। আমার রেফার কোড হল 570851 . একাউন্ট সফলভাবে সম্পূর্ণ হয়ে গেলে অবশ্যই একাউন্টে এককালীন একটা ফ্রি দিয়ে একাউন্ট প্রিমিয়াম করে নিতে হবে। একাউন্ট প্রিমিয়াম না করলে কিন্তু এই সাইটে কাজ করতে পারবেন না। অ্যাকাউন্ট প্রিমিয়াম করা জন্য মাত্র ৯৫ টাকা খরচ নিয়ে থাকে।এই ৯৫ টাকা বিকাশ বা নগদের মাধ্যমে দিয়ে একাউন্ট প্রিমিয়াম করে নিতে পারেন। যারা দেশের বাইরে আছেন তারা বাইরেন্স থেকে ১ ডলার দিয়ে একাউন্ট প্রিমিয়াম করে নিতে পারেন। মনে রাখবেন এই টাকা শুধুমাত্র একবার নেয়া হবে। দ্বিতীয়বার আপনার থেকে কোন প্রকার চার্জ করা হবে না। একাউন্ট প্রিমিয়াম হলে যে কোন কাজে অংশগ্রহণ করতে পারবেন। কাজ করতে হলে প্রথমত ওপরে থ্রি আইকনে ক্লিক করে জব সেকশনে চলে যেতে হবে। এর পর যে কাজটি করতে চান,তার উপর এপ্লাই নাও বাটন পেয়ে যাবেন একটা ক্লিক করে দিলে কাজের ভিতরে প্রবেশ করে যাবেন। এরপর বিভিন্ন ইনফরমেশন আছে সেগুলো ভালোমতো পড়ে কাজ করবেন। এবং প্রমাণ হিসেবে যে সকল তথ্য জমা চাইবে সেগুলো জমা করে দিতে হবে। মনে রাখবেন এখানে প্রমাণ বিভিন্ন ধরনের হতে পারে। সেটা হতে পারে লিখিত প্রমাণ অথবা হতে পারে স্ক্রিনশট। যে ধরনের প্রমাণ চাইবে সে ধরনের প্রমাণ জমা দিতে হবে। এবং কোন প্রকার ভুল প্রমাণ জমা দিলে, কাজ থেকে বঞ্চিত হবেন। মানে কাজের বিনিময়ে কোন প্রকার টাকা পাবে না শুধু শুধু মূল্যবান সময় নষ্ট হবে। তাই সঠিকভাবে সকল কাজের প্রমাণ জমা করবেন।


কি কি কাজ করতে পারবো?
এখানে বিভিন্ন ধরনের বিভিন্ন ক্যাটাগরি কাজ রয়েছে। যে কাজটি করতে ভালো লাগে আপনার স্বাচ্ছন্দবোধ করেন সেই কাজটি করতে পারবেন। প্রত্যেকটি কাজের জন্য রয়েছে আলাদা আলাদা পেমেন্ট। বড় কাজ করলে বেশি টাকা পাবেন এবং ছোট কাজগুলো করলে কম টাকা পাবেন। যত বেশি সময় খরচ করবেন তত বেশি ইনকাম হবে। এই সাইটে কাজের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো, ইউটিউবের ভিডিও দেখা, ফেসবুকের ভিডিও দেখা, বিভিন্ন ওয়েবসাইটে প্রবেশ করা, লিঙ্কে গিয়ে বিভিন্ন এড এ ক্লিক করা, বিভিন্ন সাইটের একাউন্ট ক্রিয়েশন করা, লাইক, কমেন্ট, শেয়ার, ফলো ইত্যাদি করা।

প্রতিদিন কত সময় কাজ করতে হবে?
কাজ করার নির্দিষ্ট কোন সময় নাই। ইচ্ছামতো সময় ব্যবহার করতে পারবেন। মানে প্রতিদিন ৫ ঘন্টা ৭ ঘন্টা ১০ ঘন্টা বা ১ মিনিট কিংবা ৫ মিনিট সময় ব্যবহার করে কাজ করতে পারবেন। যত বেশি সময় খরচ করবেন তত বেশি ইনকাম হবে। এখানে কোন ধরনের বাধ্যবাধকতা নেই। যেখানে আপনি নিজেই আপনার বস। এ ধরনের কাজগুলোকে মূলত ফ্রিল্যান্সিং বলা হয়। এক কথায় বলতে পারেন এটা একটা ফ্রিল্যান্সিং কাজ। আপনার ইচ্ছা হল করলেন ইচ্ছা নাই করলেন না। কেউ আপনাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করবে না।

কতক্ষণ পরে কাজের পেমেন্ট পাব?

এখানে প্রতিটি কাজের আলাদা আলাদা নির্দিষ্ট সময় আছে। যেমন ৩ দিন ৫ দিন ৭ দিন, বোঝানোর স্বরূপ আপনি একটা কাজ করে দিলেন, যেটার সেটিসফাইড করার মেয়াদ ৩ দিন, মানে আপনি কাজটি সম্পন্ন করার পরের ৩ দিনের মধ্যে মূল একাউন্টে ব্যালেন্স পেয়ে যাবেন। যেহেতু এটা একটা মাইক্রো জব ওয়েবসাইট। তাই কোন কাজের পেমেন্ট অটোমেটিক হয়না। এগুলো ম্যানুয়ালি হয়ে থাকে। আপনি যেই কাজটি করে দিলেন সেই কাজ কেউ না কেউ এই সাইটে পোস্ট করেছিল। সেই ব্যক্তি যখন আপনার প্রমাণ গুলো যাচাই-বাছাই করবে, এবং প্রমাণ সঠিক হলে এপ্রুভ করে দেবে। আর বুঝতেই পারতেছেন যখন এপ্রুভ করবে তখন সেই কাজের মূল্য আপনি পেয়ে যাবেন।

সর্বনিম্ন কত ডলার হলে উত্তোলন করতে পারবো?
মিনিমাম ২ ডলার হলে এই সাইট থেকে উত্তোলন করতে পারবেন। যদি মনোযোগ সহকারে কাজ করেন ২ ডলার ইনকাম করা কোন ব্যাপারই না। কারণ এখানে প্রতিটি কাজের হিউজ পরিমাণে এমাউন্ট তারা পেমেন্ট করে থাকে। একাউন্ট খুলে বসে থাকলে চলবে না। আপনাকে প্রতিনিয়ত কাজ করে যেতে হবে। তাহলে আশা করি একটা সময় মোটা অংকের টাকা উত্তোলন করতে পারবেন।

১ ডলার সমান কত টাকা ?
এক ডলার সমান ৯৫ টাকা। বর্তমানে বাংলাদেশের ডলার রেট ১০৯ থেকে ১১৫ টাকা। এবং ক্রিপটুকারেন্সি ডলার প্রায় ১২০ টাকা। আর এই সাইটে প্রতি ডলার রেট পাবেন ৯৫ টাকা। ডলারের বিভিন্ন সাইট ভেদে বিভিন্ন রকম রেট হয়ে থাকে। বিশেষ করে বাংলাদেশে এক এক সাইটে একেক রকম ডলার রেট।

রেফার থেকে ইনকাম করা যায়?
এই সাইট থেকে রেফার করে ইনকাম করার সুবর্ণ সুযোগ আছে। প্রতিটি রেফার থেকে ১০ টাকা ইনকাম করা যায়। উদাহরণস্বরূপ যদি ৫০ টা রেফার করেন, তাহলে আপনার ইনকাম হবে ৫০০ হাজার টাকা। এবং রেফারের টাকা উত্তোলন করার কোন কন্ডিশন নাই। কোন প্রকার ঝামেলা ছাড়াই উত্তোলন করে নিতে পারবেন। একটা কথা মনে রাখবেন, যাকে রেফার করবেন তাকে অবশ্যই অ্যাকাউন্ট প্রিমিয়াম করতে হবে। যদি প্রিমিয়াম করে তাহলে তার থেকে ১০ টাকা পেয়ে যাবেন। আর যদি প্রিমিয়াম না করে তাহলে ইনকাম ০ টাকা।

কি কি মাধ্যমে উত্তোলন করা যাবে?
আপনারা একটি কথা জানলে অত্যন্ত আনন্দিত হবেন যে। এই সাইটে উত্তোলন করা কয়েকটি মাধ্যম রয়েছে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো বিকাশ, নগদ এবং পেয়ার । এই সাইডেই সবচেয়ে সুবিধা হল, ইনকাম করা টাকা খুব সহজে বিকাশ বা নগদে মাধ্যমে উত্তোলন করে নিতে পারবেন। এবং সেটা সরাসরি। আর যারা দেশের বাইরে আছেন তারা চাইলে পেয়ারের মাধ্যমে উত্তোলন করে নিতে পারবেন। উত্তোলন করা টাকা সর্বোচ্চ ১২ ঘন্টার মধ্যে পেয়ে যাবেন ইনশাআল্লাহ । এবং তা সপ্তাহে সাত দিনই করতে পারবেন।

অন্য কোন দেশ থেকে কাজ করা যাবে?

অবশ্যই এটি একটি ইন্টারন্যাশনাল ওয়েবসাইট। আপনি বিশ্বের যে কোন প্রান্ত থেকে এই সাইটে কাজ করতে পারবেন। সেটা হতে পারে ইন্ডিয়া, পাকিস্তান, সৌদি আরব, দুবাই, সিঙ্গাপুর, অস্ট্রেলিয়া, জাপান, নিউজিল্যান্ড আমেরিকা, কানাডা ইত্যাদি। এক কথায় পৃথিবীর সকল দেশ থেকে এই সাইটে কাজ করতে পারবেন। আমি পূর্বেই বলেছি যারা বাইরে দেশে আছেন, তারা এই সাইট থেকে পেয়ারের এর মাধ্যমে উত্তোলন করতে পারবেন।

কতদিন থাকবে এই সাইট?
এটা কোন ইনভেস্টমেন্ট না। আপনি নিজের পারিশ্রম এবং যোগ্যতা দিয়ে এখান থেকে ইনকাম করবেন। এই ধরনের সাইট গুলো কখনো স্ক্যাম করে না। ইনশাআল্লাহ এটাও করবে না। এক কথায় বলতে পারেন সারা জীবন ইনকাম করতে পারবেন। ইনভেস্টমেন্ট সাইটে পা না দিয়ে এ সকল সাইটে কাজ করা সর্বোত্তম। তাই বেশি চিন্তা ভাবনা না করে আজকে থেকে এই সাইটে কাজে লেগে পড়ুন। সকলের জন্য থাকলো আমার পক্ষ থেকে অনেক অনেক শুভকামনা।

বিশেষ দ্রষ্টব্য: এই ওয়েবসাইট নিয়ে আমার ইউটিউব চ্যানেলে একটি ভিডিও আছে। যদি কেউ ভিডিও না দেখে থাকেন তাহলে অবশ্যই ভিডিওটি দেখতে পারেন। কারণ সবাই জানেন ভিডিওতে সবকিছু সরাসরি হাতে কলমে দেখানো হয়। ভিডিও দেখতে চাইলে নিচের প্লে নাও বাটনে ক্লিক করুন। ধন্যবাদ সবাইকে। আজকের ব্লগ এখানেই শেষ করছি সবাই ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন আল্লাহ হাফেজ।